ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্যের কারণে প্রার্থিতা হারালেন কনজারভেটিভ সদস্য ।

প্রকাশিত: ১১:৪১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০১৯

ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্যের কারণে প্রার্থিতা হারালেন কনজারভেটিভ সদস্য ।

হ্যালো বাংলাদেশ নিউজ ডেস্কঃ ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্যের অভিযোগে এক সদস্যের প্রার্থিতা বাতিল করলো স্কটিশ কনজারভেটিভ পার্টি। বুধবার দলটি জানায়, এক অভিযোগের ভিত্তিতে গ্লাসগোতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাওয়া ফ্লোর স্কারাবেলোর ওপর থেকে তারা সমর্থন সরিয়ে নিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলাকালীন সময়ে তার সদস্যপদও স্থগিত থাকবে বলে জানান তিনি।

আগামী ১২ ডিসেম্বরের সাধারণ নির্বাচন ঘিরে প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছে যুক্তরাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো। এর মধ্যেই ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির বিরুদ্ধে উঠেছে ইসলাম-বিদ্বেষের অভিযোগ। দলীয় পদবী বন্টনের ক্ষেত্রে এই অভিযোগ ওঠায় পূর্ণাঙ্গ স্বাধীন তদন্ত দাবি করেছেনদলটির সাবেক চেয়ার ব্যারোনেস সায়িদা ওয়ারসি। ইতোমধ্যে পার্টিতে ইসলাম-বিদ্বেষ থাকায় ক্ষমা চেয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

তবে প্রার্থিতা বাতিল করার সময়সীমা শেষ হয়ে যাওয়ায় এখনও ব্যালট বাক্সে তার নাম দেখা যাবে। স্কটিশ কনজারভেটিভের এক মুখপাত্র বলেন, আমরা এমন অভিযোগ খুব গুরুত্বের সঙ্গে দেখে থাকি। এখানে মুসলিম বিরোধী কিংবা কোনও বৈষম্যমূলক বক্তব্যের জায়গা নেই।এজন্যই ফ্লোর স্কারাবেলোকে বহিষ্কার করে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ইসলামবিদ্বেষের জন্য বরিস জনসন ক্ষমা চাইলেও দেশটির বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন জানিয়ে দিয়েছেন, তার বিরুদ্ধে ওঠা ইহুদি বিদ্বেষের জন্য ক্ষমা চাইবেন না তিনি। মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের অন্যতম ইহুদি নেতা এফ্রাহিম মিরভিস লেবার পাটির অভ্যন্তরে ইহুদি-বিদ্বেষের অভিযোগ এনেছেন। তিনি বলেন এই বিদ্বেষের কারণে ব্রিটিশ ইহুদিদের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ উদ্বেগে রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ