ব্রিটেনে অতীতের যেকোন সময়ের চেয়ে বেনিফিট এখন সর্বনিম্ন

প্রকাশিত: ৫:৩৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯

:হ্যালো বাংলাদেশ নিউজঃ অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে ব্রিটেনে সোশাল সিকিউরিটি পেমেন্ট এখন সর্বনিম্ন। থিংক ট্যাংক আইপিপিআর এর গবেষণা মতে ১৯৪৮ সালে এটি চালু হওয়ার পর এবারই বেনিফিট সর্বনিম্ন পর্যায়ে পৌছালো।

গবেষণায় দেখা যায় ইউনিভার্সেল ক্রেডিটের মাধ্যমে প্রদত্ত সাপ্তাহিক ভাতা ৭৩ পাউন্ড যা মধ্য আয়ের একটি পরিবারের ১২.৫% আয়ের সমান। কিন্তু ১৯৪৮ সালে বেকার ভাতা চালুর সময় এর পরিমান ছিলো ২০%।

গবেষনা রিপোর্টটি ট্রাসেল ট্রাস্ট নেটওয়ার্ক অব ফুড ব্যাংক এর ডাটার সাথে মিলে গেছে। ট্রাসেল ট্রাস্টের ডাটা মোতাবেক গত এক যুগে ফুড ব্যাংকের পরিমান বেড়েছে ৩,৭৭২%। ট্রাস্ট ২০০৯/১০ সালে ৫৭টি ফুড ব্যাংক চালু করে এসবের মাধ্যমে ৪০,৮৯৮ টি এইড প্যাকেজ তারা বিতরন করেছে।

এবছরের মার্চের শেষের দিকে এসে তাদের ফুড ব্যাংক বেড়ে আরো যোগ হয়েছে ৪২৫টি। আর এসব ফুড ব্যাংকের মাধ্যমে মোট ১.৫৮ মিলিয়ন প্যাকেজ ফুড বিতরন করা হয়েছে। বিতরনকৃত ফুডের মোট তিন ভাগের মধ্যে একভাগেরও বেশী গেছে শিশুদের কাছে। টাওয়ার হ্যামলেটসেও অনেকগুলো ফুড ব্যাংক রয়েছে এবং এখানে এই সংখ্যা অনেক বেশী।

সমাজের সবচাইতে ভঙ্গুর জনগোষ্ঠিকে সহযোগিতার লক্ষ্যে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল ট্যাকেলিং পোভার্টি ফান্ডে ৬.৬ মিলিয়ন পাউন্ড বরাদ্দ করেছে। এর মাধ্যমে দরিদ্রদেরকে উপদেশ প্রদানসহ ক্রাইসিস লোন এবং আরো অন্যান্য সহযোগিতা করা হয়। লিডার অব টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার গ্রুপ মেয়র জন বিগস এব্যাপারে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ফুড ব্যাংকের চাহিদা বৃদ্ধি এবং লিভিং কস্টের সাথে অসামঞ্জস্য বেনিফিট পেমেন্ট দেখে আমি মোটেই বিস্মিত নই। আমি নিয়মিতভাবে এডভাইস সার্জারীতে অনেকের সাথেই কথা বলি এবং দেখতে পাই তাদের দৈনন্দিন জীবন সংগ্রাম। সরকারের উচ্ িআমাদের ভেঙ্গে পড়া বেনিফিট সিস্টেমকে ঠিক করা।

লেবার গ্রুপের কেবিনেট মেম্বার ফর ট্যাকেলিং পোভার্টি কাউন্সিলার র‌্যাচেল ব্ল্যাক বলেন, কল্যান রাষ্ট্রের সৃষ্টি ছিলো একটি মহান রাজনৈতিক চিন্তার ফসল। কিন্তু সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে প্রমানিত হয় একে ব্যাপকভাবে উপেক্ষা করা হয়েছে। দরিদ্রদের সহায়তার লক্ষ্যে টাওয়ার হ্যামলেটসের বিভিন্ন পদক্ষেপের জন্য আমি গর্বিত। তবে যতক্ষন না পর্যন্ত লিভিং কস্টের সাথে বেনিফিট পেমেন্টের সামঞ্জস্য হবে না ততক্ষন পর্যন্ত ফুড ব্যাংক ব্যবহারের সংখ্যা বাড়তেই থাকবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ