মোহাম্মদ রামাদান আলীর শেষ ইচ্ছা ছিল দুই পবিত্র ভূমি মক্কায় ওমরা পালন এবং মদিনা মুনাওয়ারা জিয়ারত করা

প্রকাশিত: ৮:৪৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯

মোহাম্মদ রামাদান আলীর শেষ ইচ্ছা ছিল দুই পবিত্র ভূমি মক্কায় ওমরা পালন এবং মদিনা মুনাওয়ারা জিয়ারত করা

হ্যালো বাংলাদেশ নিউজঃমোহাম্মদ রামাদান আলীর শেষ ইচ্ছা ছিল দুই পবিত্র ভূমি মক্কায় ওমরা পালন এবং মদিনা মুনাওয়ারা জিয়ারত করা। শেষ ইচ্ছা মোতাবেক সে প্রথমেই পবিত্র নগরী মদিনা মুনাওয়ারায় যায়। সেখান থেকেই পবিত্র নগরী মক্কায় ওমরা পালনে যাওয়ার কথা। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে সে মদিনার আল-আনসার হসপিটালে ভর্তি অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুর পর তাকে মসজিদে নববির পাশে জান্নাতুল বাকিতে দাফন করা হয়।

মালয়েশিয়ান যুবক মোহাম্মদ রামাদান আলীর বয়স ছিল ২০। মরণব্যাধি লিউকেমিয়ায় চূড়ান্ত পর্যায়ে আক্রান্ত ছিলেন তিনি। ডাক্তার তার বেঁচে থাকার ব্যাপারে কোনো আশ্বাস দেয়নি। এক মাসের মধ্যেই তার মৃত্যু হবে বলে জানায়।

মোহাম্মদ রামাদানের মৃত্যু প্রতিক্রিয়ায় তার বোন মালয়েশিয়ার ‘দ্যা স্টার’কে জানায়, ‘তার পরিবার ভাইয়ের মৃত্যু সংবাদ শুনে মনোক্ষুন্ন হয়েছে। কিন্তু এ কথা ভেবে খুশি যে, তার ভাই পবিত্র নগরী মদিনার মসজিদে নববির পাশে জান্নাতুল বাকিতে সমাহিত হয়েছেন।

তিনি আরো জানা জানান, মোহাম্মাদ রামাদান আলীর পিতা পবিত্র মক্কায় ছেলের ওমরা আদায় করতে যাবেন এবং মদিনা মুনাওয়ারার জান্নাতুল বাকিতে সমাহিত সন্তানের কবর জিয়ারত করবেন। এ এক অসাধারণ মৃত্যু। নিশ্চিত মৃত্যু জেনেও মোহাম্মাদ রামাদান ওমরা পালন এবং মদিনা জিয়ারতে উদগ্রীব ছিলেন। আল্লাহ তায়ালা তাকে জান্নাতের সর্বোচ্চ মাকাম দান করুন। আল্লাহ তায়ালা মুসলিম উম্মাহকে হজ-ওমরা ও মদিনা যিয়ারত করার তাওফিক দান করুন। উত্তম মৃত্যু দান করুন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ