অনুমতি ছাড়া সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা যাবে না

প্রকাশিত: ১২:৪৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

জনস্বার্থ সুরক্ষায় নিয়োজিত সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে সরকারের অনুমতি ছাড়া কোনো মামলা গ্রহণ করা যাবে না। এ বিষয়ে বিদ্যমান বিধিবিধান যথাযথভাবে মেনে চলার জন্য নির্দেশনা দিয়ে মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে আইন ও বিচার বিভাগের সচিবকে চিঠি দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার সরকারি বাসায় ঢুকে হামলা এবং মাদারীপুরে ডিসি, ইউএনও এবং এসি ল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভূমি দখলকারীদের পক্ষে মামলা আমলে নেয়ায় নতুন করে এই চিঠির বিষয়টি সামনে এসেছে।

দু’পৃষ্ঠার চিঠিতে এক স্থানে মূল বক্তব্য হিসেবে বলা হয়েছে, আইনের শাসন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সৎ সাহস এবং প্রভাবমুক্ত মনন ও বিবেচনাবোধের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত প্রদান ও দৃঢ়ভাবে তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট বিধানাবলির গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

কিন্তু সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, বিভিন্ন জেলায় জেলা প্রশাসক/জেলা ম্যাজিস্ট্রেট/কালেক্টর, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সরকারি কর্মচারীরা সরকারি দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মামলার সম্মুখীন হচ্ছেন। তাদের ব্যক্তিগতভাবে দায়ী করেও মামলা করা হচ্ছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে সরকারের পূর্বানুমোদন গ্রহণের আইনি বাধ্যবাধকতা থাকলেও তা প্রতিপালিত হচ্ছে না।

এতে করে আইনের ব্যত্যয় ছাড়াও মাঠ পর্যায়ে শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা ও অপরাধ প্রতিরোধ/দমনে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ প্রায়ই বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। বিশেষ করে নদী, খাল-বিল, বন, জলাশয়সহ সরকারি সম্পত্তি ও স্বার্থরক্ষা, অবৈধ ক্ষতিসাধন/জবরদখল প্রতিরোধ ও উচ্ছেদ অভিযানে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হচ্ছে।

অথচ যে কোনো সরকারি কাজ বা সিদ্ধান্তের বিষয়ে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি আইনে নির্ধারিত কর্তৃপক্ষের কাছে আপিল দায়ের কিংবা প্রতিকার চেয়ে ঊর্ধ্বতন প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করতে পারেন।