ওসমানীনগরে বাস কারের মুখোমুখি সংর্ঘষেএকই পরিবারের ৪জনসহ ৫জন নিহত

প্রকাশিত: ৯:১২ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০২০

ওসমানীনগরে বাস কারের মুখোমুখি সংর্ঘষেএকই পরিবারের ৪জনসহ ৫জন নিহত

মোঃ মুহিব হাসান,ওসমানীনগর থেকে:
ওসমানীনগরের সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের তাজপুর ইউনিয়নের চানপুর নামক স্থানে
যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভটেকারের মুখোমুখি সংর্ঘষে একই পরিবারের ৪জন ও
প্রাইভেট কার চালকসহ  ৫জন নিহত হয়েছেন।  তারা হলেন সুনামহগঞ্জ জেলার
দিরাই উপজেলার সিমারচর গ্রামের মৃত হরিপদ দাসের ছেলে স্বপন কুমার দাস
(৪৫), স্বপন কুমার দাস এর স্ত্রী লাবনী রাণী দাস (৪০) ,তাদের ১২ বছর ও ১০
বছর বয়সী দুই ছেলে এবং প্রাইভেট কার চালক (৩৫)। এসময় গুরুতর আহত হয়েছেন
আরও একজন। সিলেট তামাবিল হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতদের লাশ
উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে ও গুরুতর আহত ব্যক্তিকে চিকিৎসার জন্য
সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।
প্রত্যক্ষদর্শী ও সিলেট তামাবিল হাইওয়ে থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়,আজ ৩১
জুলাই শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ওসমানীনগর উপজেলার
তাজপুর ইউনিয়নের চাঁনপুর নামক স্থানে সিলেটগামী প্রাইভেট কার (নং-চট্টো
মেট্্েরা- গ-১১-২০১৯) কে কুমিল্লাগামী কুমিল্লা ট্রান্সপোর্ট এর বাস (
নং- ঢাকা মেট্্েরা ব-১৯-৮৫৮৪) মুখোমুখি চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেট
কারের চালকসহ একই পরিবারের সকল আরোহী নিহত হন। দুর্ঘটনায় কারটি দুমড়ে
মুছড়ে যায়।
খবর পেয়ে সিলেট তামাবিল হাইওয়ে থানা পুলিশের ওসি মাইনুল ইসলাম এর
নেতৃত্বে একটি টীম ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতদের লাশের সুরত হাল প্রতিবেদন
তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্যে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে
পাঠান এবং গুরুতর আহত অপর একজনকে চিকিৎসার জন্য একই হাসপাতালে ভর্তি করেন
এবং বাসটি আটক করেন।
সিলেট তামাবিল হাইওয়ে থানা পুলিশের ওসি মাইনুল ইসলাম বলেন,ওসামীনগরে
সিলেট ঢাকা মহাসড়কে দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৪জনসহ ৫জন মারা গেছেন।
দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি আটক করা হয়েছে, তবে চালক পলাতক রয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ