ফার্মেসি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ব্যতীত তাজপুর বাজারে অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ চান সচেতন নাগরিকরা

প্রকাশিত: ৪:৩২ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০

ফার্মেসি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ব্যতীত তাজপুর বাজারে অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ চান সচেতন নাগরিকরা

ওসমানীনগর প্রতিনিধি:সিলেটের ওসমানীনগরে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিনজন উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণও করেছে একজন।
বাঁচার তাগিদে ওসমানীনগরের অন্যতম বাণিজ্যিক নগরী গোয়ালাবাজারে শপিংমল বন্ধ করে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।
দয়ামির বাজারেও ঈদ পর্যন্ত শপিংমল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।কিন্তু তাজপুরে দেখা যাচ্ছে ভিন্ন অবস্থা।
গোয়ালাবাজার,দয়ামিরে শপিংমল বন্ধ থাকার সুবাদে অসচেতন ক্রেতারা রাত পোহালেই এসে ভীড় করছেন তাজপুর বাজারে।

উল্লেখ্য গত শুক্রবার (১৫ মে) তাজপুরের মশ্রব আলী কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পল্লী বিদ্যুতের এক লাইন টেকনিশিয়ান। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার পর ফলাফলে তার করোনা পজিটিভ আসে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ই-মেইলের মাধ্যমে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাব থেকে রিপোর্ট জানানো হয়। এ নিয়ে উপজেলায় ৩জন করোনারোগী শনাক্ত হয়েছেন।

ওসমানীনগরে করোনার ঝুঁকি বাড়ছে দিনদিন।এতো ঝুকির মধ্যে জিবনের তোয়াক্কা না করে তাজপুরে শপিংমল ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখছেন ব্যবসায়ীরা।সকাল থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত তারা দোকানপাট খোলা রাখছেন।

ব্যবসায়ীদের মধ্যে করোনা ভয়ের লেশ মাত্র নেই।অসচেতন মানুষের মধ্যেও করোনা ভয়ের, সচেতনতার লেশ মাত্র নেই।লকডাউন করা বাসার নিচ দিয়ে যায় আর যাওয়ার সময় বলে করোনা থাকে তিন তালায় নিচ তলায় আসবে না!
এতে ক্ষুব্ধ হচ্ছেন এলাকার সচেতন নাগরিকরা।
তারা আশংকা করছেন এভাবে চলতে থাকলে ওসমানীনগরে করোনার আক্রমণ আরও ভয়াল রূপ ধারণ করতে পারে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাজপুরের শপিংমল বন্ধের জন্য ব্যাপক প্রতিবাদ উঠছে সচেতন যুবসমাজের কাছ থেকে।
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে তাজপুর বাজারের শৃংখলা ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য যুব সমাজের তত্বাবধানে প্রতিরোধ কমিটি প্রয়োজন বলে দাবি করছেন তারা।
এখন পর্যন্ত সবধরনের দোকানপাট খোলা রাখা হয়েছে এলাকার মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ারও অনুরোধ করছেন।
বলছেন আমরা যুব সমাজ প্রস্তুত আছি, আমাদের কাজে লাগান।
সামাজিক দূরত্ব ও মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য তাজপুর বাজারে ফার্মেসি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান খোলা রেখে শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধের জন্য উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় চেয়ারম্যান, তাজপুর বাজার পরিচালনা কমিটির প্রতিও অনুরোধ জানাচ্ছেন এলাকার সচেতন সর্বস্তরের মনসাধারণ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ