ফ্রান্সে নাগরিকত্ব পাচ্ছেন করোনা যোদ্ধারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নিজেদের উজাড় করে দেয়া ফ্রন্টলাইন কর্মীদের নাগরিকত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফ্রান্স। এদের মধ্যে আছেন স্বাস্থ্য সেবাকর্মী, শিশু সেবাকর্মী এবং হাউসকিপার ও ক্যাশিয়ার।

করোনার ঝুঁকির মুখেও সেবা দিয়ে যাওয়ায় এমন অন্তত ৭শ’ বিদেশিকে নাগরিকত্ব দেয়া হবে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছেন জুনিয়র নাগরিকত্বমন্ত্রী মারলেন শিয়াপ্পা। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘তারা দেশের প্রতি নিজেদের প্রতিশ্রুতির প্রমাণ দিয়েছেন। এখন রাষ্ট্রের দায়িত্ব তাদের প্রতিদান দেয়া।’ নিউইয়র্ক টাইমস।

শিয়াপ্পা আরও বলেন, কিছু বিদেশি কর্মক্ষেত্রে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন এবং করোনা মহামারী মোকাবেলায় নিজেদের ঝুঁকির মুখে ফেলেছেন। তারা নিবেদিতপ্রাণ ও সাহসিকতা নিয়ে কার্যকরভাবে জাতীয় প্রচেষ্টায় অংশ নিয়েছেন।

এর আগে সেপ্টেম্বর মাসে ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গেরাল্ড ডারমানিন আঞ্চলিক অফিসগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছিলেন ‘সক্রিয় অবদান’ রাখা করোনা যোদ্ধাদের পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য। যাতে করে দ্রুততার সঙ্গে তাদের ন্যাচরালাইজেশন বা দেশের নাগরিকের অংশ করে নেয়া যায়।

তারপর থেকে এ পর্যন্ত ৭০ জন আবেদনকারীকে নাগরিকত্ব দেয়া হয়েছে। আরও ৭৯৩ জন নাগরিকত্ব পাওয়ার প্রক্রিয়ার চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছেন বলে জানিয়েছে শিয়াপ্পার অফিস। এছাড়া ‘উৎকৃষ্ট সেবাদাতাদের’ নাগরিকত্ব দেয়ার ক্ষেত্রে ফ্রান্সে পাঁচ বছর অবস্থানের বাধ্যবাধকতা দুই বছরে নামিয়ে আনার নির্দেশনাও দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

নেতা হলে সবার পরে খেতে হয় -মার্কিন আইন প্রণেতা : করোনার টিকা পাওয়ার জন্য হাহাকার শুরু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। রাজনৈতিক নেতা প্রভাবশালী ও অর্থবিত্তের মালিকরা যে কোনো মূল্যে নিজেদের জন্য টিকা নিশ্চিত করতে চান।

এমনকি করোনাবিরোধী ফ্রন্টলাইন যোদ্ধা তথা ডাক্তার-নার্স ও জরুরি সেবার কর্মীদের পেছনে ফেলেই নিজের টিকার জন্য হুড়োহুড়ি করছেন তারা। এমন খবর পাওয়া যাচ্ছে বিশ্বের নানা গণমাধ্যমে। ‘নেতারাই টিকা নিচ্ছেন আগে’ শিরোনামের একটি খবর বুধবার যুগান্তরেও প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু সব রাজনৈতিক নেতা ও আইণপ্রণেতা এক কাতারের নয়। ব্যতিক্রমও কিছু আছেন।

তারা চান আগে ডাক্তার-নার্স, জরুরি সেবাকর্মী ও জনগণ টিকার পাবেন। তারপরই তারা টিকা নেবেন।

এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজন মার্কিন আইনপ্রণেতা হলেন- ব্রায়ান মাস্ট, ইলহাম ওমর, তুলসি গাব্বারড, জেফারসন ভ্যান ড্রিউ, সিনেটর র‌্যান্ড পল ও নতুন নির্বাচিত আইনপ্রণেতা ন্যান্সি ম্যাসি। ব্রায়ান মাস্ট বলেন, ‘আমি টিকার প্রতি উদাসীন নই। কিন্তু আমার অবস্থান হচ্ছে- আপনি যদি একজন নেতা হন, তবে আপনাকে সবার পরে খেতে হবে।’

Recent Posts

  • গ্রাম -বাংলা

বালাগঞ্জের মুসলিমাবাদে বাজারের নামকরণ নিয়ে দু’পক্ষে সংঘর্ষ, আহত ৪

আমির আলী: বালাগঞ্জ উপজেলার পূর্ব গৌরীপুর ইউনিয়নের মুসলিমাবাদে একটি বাজারের নামকরণ নিয়ে দীর্ঘ কয়েক বছর…

3 days ago
  • আর্ন্তজাতিক

স্কটল্যান্ডে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাজ্যে স্বদেশী সহকর্মীর ছুরিকাঘাতে নিহত হয়ে‌ছেন এক বাংলা‌দেশি। স্কটল্যান্ডে নিহত রেস্টুরেন্ট কর্মীর নাম…

6 days ago
  • শোক সংবাদ

বালাগঞ্জ বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক হাজীগেদাই মিয়ার ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

বালাগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক আহবায়ক মরহুম হাজী মোঃ গেদাই মিয়ার ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী…

6 days ago
  • সাহিত্য ও কবিতা

লর্ড কর্ণওয়ালিশ ও লর্ড রিপন: জমিদার প্রথার উদ্ভব ও বিলোপ

মুহাম্মদ শামসুল ইসলাম: ইস্টইন্ডিয়া কোম্পানী যে ভারতীয় উপমহাদেশে এসেছিল এবং তাদের প্রাথমিক ইন্টারভেশন সেটির প্রকৃতি…

7 days ago
  • ইসলামিক
  • প্রবাসের খবর

বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের বিশুদ্ধভাবে কুরআন শিক্ষার কোর্সের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্টান অনুষ্টিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃস্পেনের পর্যটন নগরী বার্সেলোনার Calle LLuna -11 বাংলাদেশী কমিউনিটি পরিচালনাধীন ক্রয়কৃত বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে…

2 weeks ago
  • প্রবাসের খবর
  • রাজনীতি

যুক্তরাজ্যে এবি পার্টির আহবায়ক কমিটি গঠন

নিউজ ডেস্কঃআমার বাংলাদেশ পার্টি যুক্তরাজ্য শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। গত ৬ আগস্ট সোমবার…

2 weeks ago

This website uses cookies.