মুমিনের দিল আল্লাহর ভয়ে ভরপুর থাকবে

প্রকাশিত: ৭:১৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২১, ২০২০

মুমিনের দিল আল্লাহর ভয়ে ভরপুর থাকবে

মুমিনের দিল আল্লাহর ভয়ে ভরপুর থাকবে।
ভয় দেখানো ও ভীত হওয়া কি মুমিনের বৈশিষ্ট; এটাই কি করোনা থেকে পরিত্রানের মাধ্যম?

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন- সহজ করো, কঠিন করো না; সুসংবাদ দাও, (ভয় দেখিয়ে) দূরে সরিয়ে দিও না। (-বুখারী)
يسروا و لا تعسروا و بشروا و لا تنفروا
একজন মুমিনের কাজ হচ্ছে মানুষকে যেমন ভয় দেখাবেন তেমন আশার বাণীও শুনাবেন। শুধু শুধু ভয় দেখিয়ে মানুষকে আতঙ্কিত করা মুটেও উচিত না। আজ আমরা কিছু মানুষ শুধু করোনার মৃত্যুর সংবাদগুলো প্রচার করেই যাচ্ছি। যার দরুন মানুষের মাঝে নেগেটিভ প্রভাব বিস্তার করছে। মানুষ ভীত সন্ত্রস্ত হচ্ছে। আসলে ভয় ভীতির উর্ধে উঠে অবস্থার মোকাবেলা করা হচ্ছে সময়ের দাবি।

একজন মুমিনের উচিত না সর্বদা ভীত সন্ত্রস্ত থাকা। মুমিন আল্লাহর রহমতের আশা নিয়ে থাকবে। নিরাশ হলে চলবে না। আল্লাহ তা’আলা কি বলেননি?
لَا تَقْنَطُوا مِنْ رَحْمَةِ اللَّهِ
তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না।( আল কোরআন ৩৯/৫৩)

কেন নিরাশ হবো? আল্লাহ তা’আলা নিজে বিপর্যয়ে মুমিনদের জন্য সাহায্যর ওয়া’আদা দিয়েছেন!

فَانْتَقَمْنَا مِنَ الَّذِينَ أَجْرَمُوا ۖ وَكَانَ حَقًّا عَلَيْنَا نَصْرُ الْمُؤْمِنِينَ
যারা পাপী ছিল, তাদের আমি শাস্তি দিয়েছি। মুমিনদের সাহায্য করা আমার দায়িত্ব।(আল কোরআন ৩০/৪৭)
যেখানে আল্লাহ তা’আলা নিজেই সাহায্যের দায়িত্ব নিয়েছেন, সেখানে মুমিনের বিচলিত হওয়া কক্ষনও কাম্য না।

মুমিনের দিল বিপর্যয়ের ভয়ে নয়; আল্লাহর ভয়ে ভরপুর থাকবে। অন্য কিছুর ভয় মনে জিইয়ে রাখা উচিত না।

الَّذِينَ آمَنُوا وَتَطْمَئِنُّ قُلُوبُهُمْ بِذِكْرِ اللَّهِ ۗ أَلَا بِذِكْرِ اللَّهِ تَطْمَئِنُّ الْقُلُوبُ

যারা বিশ্বাস স্থাপন করে এবং তাদের অন্তর আল্লাহর যিকির দ্বারা শান্তি লাভ করে; জেনে রাখ, আল্লাহর যিকির দ্বারাই অন্তর সমূহ শান্তি পায়। (আল কোরআন ১৩/২৮)
আর সব সময় আল্লাহ ভীতি দিলে জিইয়ে রাখা শুধু আল্লাহ তা’আলার স্বরন নয়, সর্বোচ্চ স্মরন। এতে আত্মার প্রশান্তি, মর্যাদা বৃদ্ধির করনও হবে।

মনের ভিতর বিপর্যয়ের ভয়কে জিইয়ে রাখা যাবে না। যদি মুমিনের মাঝে হীনতা থাকে ভাববে এটা আল্লাহর গজবের একটি লক্ষণ, যা ইহুদিদের উপর তিনি আরোপ করেছিলেন।

ضُرِبَتْ عَلَيْهِمُ الذِّلَّةُ وَالْمَسْكَنَةُ
তাদের উপর অপমান ও হীনমন্যতা আরোপ করা হয়েছে। (আল কোরআন ২/৬১)
কাজেই এখন দরকার সচেতনতার,ভয়কে জয় করার। আল্লাহর উপর তাওয়াক্কুল করার। সবর ও দৈর্যের সাথে থাকার । সবর হতে অধিক উত্তম ও ব্যাপক কল্যাণকর বস্তু আর কিছুই হতে পারে না।

আব্দুল কাদির আল মাহদি
বার্সেলোনা, স্পেন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

faster