রামাদ্বান শেষ সুযোগুলো কাজে লাগাই; অবশিষ্ট দিনগুলো যেন বৃথা পার না করি

প্রকাশিত: ৫:৫৪ অপরাহ্ণ, মে ১১, ২০২০

রামাদ্বান শেষ সুযোগুলো কাজে লাগাই; অবশিষ্ট দিনগুলো যেন বৃথা পার না করি

আব্দুল কাদির আল মাহদি
বার্সেলোনা, স্পেন থেকে

আল্লাহ তা’আলা এই রামাদ্বান মাসে আমাদের বার বার ভিবিন্ন উপায়ে সুযোগ দিচ্ছেন! এ মাসের প্রতি দিন,প্রতি রাত,প্রতি ঘন্টা,প্রতি মূহুর্ত ও প্রতি পলকে পলকে আল্লাহ তা’আলা তাঁর প্রিয় বান্দা-বান্দিদের কাছে থেকে কাছে আসার সুযোগ দিয়েই যাচ্ছেন।
তিনি হচ্ছেন গাফুর, আমাদের সুযোগ করে দিচ্ছেন তাঁর মাগফেরাতর দিকে আসার। এভাবে তিনি হচ্ছেন রাহিম,আমাদেরকে তাঁর রাহমাতের লাভের সুযোগ করে দিচ্ছেন, তিনি হচ্ছেন তাও্বয়াব, আমাদের সুযোগ করে দিচ্ছেন তাওবা তথা তার দিকে ফিরে আসার পথে। সুযোগ করে দিচ্ছেন বারাকাতের লাভের, সুযোগ করে দিচ্ছেন তাঁর একনিষ্ঠ ইবাদতের ও ভিবিন্ন আমালের। সুযোগ করে দিচ্ছেন দু’আর মাধ্যমে নিজেদের বাসনাগুলো পুরা করার।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে। আপনি,আমি কি আল্লাহ তা’আলার বিশেষ ছাড় দেয়া সুযোগ গ্রহন করে, তাক্বওয়া চর্চা মিনিমাম হক্ব করছি? না এদিকে খেয়ালই দিচ্ছি না। সুযোগগুলো বৃথা পার করছিনা তো?
যদি তাই হয়,তাহলে আফসোস! আর হতাশা, উদ্বেগ থাকবে! কারন হাদিসের ভাষ্য হচ্ছে وإنما الأعمال بالخواتيم কর্মের ফলাফল শেষাংশে নির্ভর করে।

কাজেই এমন সুযোগগুলোর ইতি ঘটার আগে শেষ চেষ্টা এখনই শুরু করি। শেষ সুযোগুলো এখনই কাজে লাগাই। হয়ত আমার জন্য রামাদ্বানের বাকি সময়ে রাহমাত,মাগফেরাত,নাজাত অপেক্ষমাণ।

আল্লাহ তা’আলা তো বলছেন

وَالَّذِينَ جَاهَدُوا فِينَا لَنَهْدِيَنَّهُمْ سُبُلَنَا ۚ وَإِنَّ اللَّهَ لَمَعَ الْمُحْسِنِينَ

যারা আমার পথে সাধনায় চেষ্টা করে, আমি অবশ্যই তাদেরকে আমার পথে পরিচালিত করব। নিশ্চয় আল্লাহ সৎকর্মপরায়ণদের সাথে আছেন। (আল কোরআন ২৯/৬৯)

মনে রাখতে হবে “রামাদ্বান মাস নয় (ভুঁড়ি ভোজনের) ব্রাই ও ফ্রাইয়ের। এই মাস হচ্ছে হচ্ছে (ক্রন্দনের) ক্রাইয়ের।
নাহয় আখেরাতে আমল নামা হবে (অসার) ড্রাই। এবং তুমি সুযোগ পাবে না আরেকবার (দেখার) ট্রাইয়ের।”

কাজেই রামাদ্বানের বাকি দিনগুলো অন্তত কাজে লাগিয়ে তার রাহমাত, বারাকাত, মাগফেরাত ও নাজাতপ্রাপ্তদের লাইনে আসার চেষ্টা করি। তখনই আল্লাহ তা’আলার এসুযোগ আমার জন্য যথার্থ হবে।

আল্লাহ তা’আলা যেন মেহেরবানি করে রামাদ্বানের প্রতিটি আমলে শরিক হওয়ার তাওফিক দান করেন। এবং রামাদ্বানে আদায়কৃত আমলগুলো কবুল করে নেন। আমিন
লেখক,কলামিস্ট, ইমাম ও খতিব দারুল কোরআন ইসলামিক সেন্টার বার্সেলোনা।