স্পেনে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ক্রমশ বৃদ্ধি মোকাবেলায় ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে

প্রকাশিত: ৬:৪৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৩, ২০২০

স্পেনে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ক্রমশ বৃদ্ধি মোকাবেলায় ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে

হ্যালো বাংলাদেশ নিউজ ডেস্কঃ

স্পেনে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ক্রমশ বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্রমবর্ধমান স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছেJ সরকার। বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য প্রদানকালে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্র সানচেজ এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, তার সরকার স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় এক বিলিয়ন ইউরো উদ্বৃত্তি দেবে এবং আঞ্চলিক প্রশাসনকে আরও ২ দশমিক ৮ বিলিয়ন ইউরো স্থানান্তর করা হবে স্বাস্থ্যসেবা প্রবৃদ্ধির জন্য। স্পেনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ার পর স্পেনের সরকার প্রধান এ ঘোষণাটি দিলেন।

সানচেজ বলেন, স্বাস্থ্য প্যাকেজের পাশাপাশি ব্যবসায়িক অর্থনৈতিক ত্রাণ সরবরাহের ব্যবস্থাও চালু করবে। এক্ষেত্রে সরকার ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগের ব্যবসায়ীদের এবং স্ব-কর্মসংস্থানের জন্য ছয় মাসের কর প্রদান স্থগিত রাখবে।

প্রধানমন্ত্রী সানচেজ ভিডিও কনফারেন্সে কেবল উচ্চ সংক্রমণ অঞ্চল নয়, পুরো স্পেনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধের সুপারিশ করেন।

সবাইকে ভ্রমণ এড়িয়ে চলারও অনুরোধ করেন।

তিনি বলেন, আমাদের সুযোগ এসেছে একে অপরকে সহযোগিতা করা। এক্ষেত্রে সরকারি সুপারিশ অনুসরণ করা প্রয়োজন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, স্পেন এ সঙ্কট দ্রুত কাটিয়ে উঠবে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার পার :
স্পেনে করোনাইরাসে বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) পর্যন্ত ৩ হাজার ৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন, যাদের মধ্য থেকে ১৮৯ জন সুস্থ হয়েছেন ও  ৮৪ জন মারা গেছেন।

স্পেনের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এল মুন্ডো এ তথ্য জানিয়েছে।

১২ প্রদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা :
করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়ায় মাদ্রিদ ও লা রিয়োখা প্রদেশকে অনুসরণ করে স্পেনের আরও ১০টি প্রদেশের আঞ্চলিক সরকার তাদের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বৃহস্পতিবার কাতালোনিয়া, পাইস বাস্ক, গালিসিয়া, আরাগন, কাস্তিয়া লা মাঞ্চা, নাভাররে, ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জ, ভ্যালেন্সিয়া, কাস্তিয়া ই লিয়ন এবং মুরসিয়া প্রদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করার ঘোষণা দেয়া হয়।

সুপার মার্কেটগুলোতে উপচেপড়া ভিড় :
স্পেনে আশঙ্কাজনকভাবে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ঘর থেকে বের না হওয়ার নির্দেশনা আসতে পারে, এমন আতঙ্কে স্পেনের সুপার মার্কেটগুলোতে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ক্রয় করতে নিয়মিত মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে গত সোমবার থেকে। আলকাম্পো, দিয়া, মেরকাদোনা, কারিফুরসহ প্রায় সবগুলো ট্রেডমার্ক শপ এর কর্মচারীদের চাহিদামত জিনিসপত্রের যোগান দিতে হিমশিম খেতে দেখা গেছে। জিনিসপত্র রাখার কিছুক্ষণের মধ্যে তাকগুলো খালি হয়ে যাচ্ছে। কাটতি রয়েছে চাল, পাস্তা, তেল, দুধ, চিনি, লবন, টয়লেট টিুস্যু এবং শুকনো বিভিন্ন খাবারের।

মাদ্রিদে স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি বাতিল:
বৃহস্পতিবার মাদ্রিদ স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ স্বাস্থ্যকর্মীদের সমস্ত ছুটি বাতিল করেছে এবং সংকটজনিত প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে সাড়া দেওয়ার জন্য হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলিতে সময়মতো উপস্থিত হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে।

 

ডেস্কঃ/সাদেক,

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

faster