ওসমানীনগরে মাছ ধরার অপরাধে হাতের আঙ্গুল কর্তন, গ্রেফতার পিতা-পুত্র

প্রকাশিত: ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০২০

ওসমানীনগরে মাছ ধরার অপরাধে হাতের আঙ্গুল কর্তন, গ্রেফতার পিতা-পুত্র

স্টাফ রিপোর্টার:


ওসমানীনগরে সামান্য মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সেলু মিয়া নামের এক ব্যক্তির হাতের আঙ্গুল কেটে ফেলা হয়েছে। গত সোমবার সকালে উপজেলার তাজপুর ইউনিয়নের দুরাজপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। তিনদিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে এসে গত বৃহস্পতিবার রাতে ৫জনকে আসামী করে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন সেলু মিয়া। ওই রাতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রঙ্গিয়া গ্রামের মুজাহিদ আলী মন্টু ও তার ছেলে আলমগীরকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। আজ শুক্রবার গ্রেফতাকৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সেলু মিয়া জানান, অভিযুক্তদের জমি বর্গা চাষ করে জীবন যাপন করেন তিনি। সোমবার সকালে তার ছোট ভাই মন্টু মিয়ার জমিতে জাল দিয়ে মাছ ধরার অভিযোগ তুললে মন্টু মিয়ার কাছে ক্ষমা চান তার ছোট ভাই। কিন্তু ক্ষমা চাওয়ার পরও মন্টু মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে সঙ্গবদ্ধভাবে বাড়িত এসে তার ওপর হামলা । মন্টু মিয়া রামদার কুপে বাম হাতের একটি আঙ্গুল কাটা পড়ে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করায় অনেক টাকা খবচ করে বর্গা চাষ করা জমি গুলো নিয়ে নিতে চাইছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এব্যাপারে ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা পাওয়া যায়। ভিক্টিমের একটি আঙ্গুল কেটে ফেলা হয়েছে। এঘটনায় জড়িত দুজনকে গ্রেফতার করে আজ শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ