অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সিরিজ জয়

প্রকাশিত: ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৭, ২০২১

খেলাধুলা ডেস্ক:একের পর এক ইতিহাস গড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি জিতেই এই ফরমেটে প্রথমবার অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর স্বাদ পেয়েছিল টাইগাররা।

সেই ইতিহাসের পাতায় নতুন রেকর্ড যোগ হয় টানা দ্বিতীয় জয়ে। সামনে ছিল প্রথমবারের মত অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যে কোনো ফরমেটে সিরিজ জয়ের হাতছানি। সেই ইতিহাসও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল গড়ে ফেলল দুই ম্যাচ হাতে রেখেই।

মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১২৭ রান করে বাংলাদেশ।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে ১১৭ রানে গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। ১০ রানের জয়ে ইতিহাস গড়ে বাংলাদেশ।

টানা তিন ম্যাচ জিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ দলনায়ক মাহমুদউল্লাহ বলেন , ‘আমার মনে হয়, ছেলেরা ঠিক সময়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আজকে রাতে ছেলেরা যেভাবে লড়াই করল তা যে কেউ দেখলে বলবে অবিশ্বাস্য! আমি মনে করি না ১৫০ রান করার মতো উইকেট এটি। আমি আর সাকিব যখন ব্যাট করছিলাম তখন আমদের পরিকল্পনা ছিল, অন্তত আমাদের একজন ১৬ বা ১৭তম ওভার পর্যন্ত টিকে থাকবে। এমন উইকেটে একজন সেট ব্যাটসম্যান খুবই গুরুত্বপূর্ণ।নতুন ব্যাটসম্যান এখানে এনেই রান তুলতে সমস্যায় ভোগে।হ্যা আজ অস্ট্রেলিয়া ভালো বল করেছে। তবে আমাদের ছেলেরা আজ দুর্দান্ত বল করেছে। আমরা অনেক কাটার ও স্লোয়ারে অস্ট্রেলিয়দের বিধ্বস্ত করেছি। ফিল্ডিংয়ে নামার আগে আমি সাকিবকে নিয়ে টিমের সবার সঙ্গে আলাপ করেছি। তখন সাকিব বলেছিল, এটা কোনো বিষয় না। আমাদের এখন বোলিংয়ের শুরুতে দ্রুত তাদের উইকেট নিতে হবে এবং চাপে ফেলতে হবে। মোস্তাফিজ অসাধারণ খেলেছে আজ। সে তার দায়িত্ব পরিপূর্ণ পালন করেছে। আজ রাতে সে ছিল অবিশ্বাস্য-অপ্রতিরোধ্য।’

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে এমন দুর্দান্ত সাফল্যের বিষয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘জিম্বাবুয়ে সফরে শেষেই আমরা পরিকল্পনা নিয়েছিলাম টি-টোয়েন্টিতে আমাদের আরো ভালো পারফর্ম করতে হবে। কারণ দল হিসেবে আমরা ভালো কিন্তু র‌্যাংকিং তা বলছে না। অথচ আমরা মনে করি, বাংলাদেশ দল বেশ ভারসাম্যপূর্ণ। সেই বিশ্বাস রেখে হৃদয়কে চওড়া করে এ সিরিজ আমরা খেলছি। এতে আমাদের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার পূর্ণ ব্যবহার হচ্ছে। আমরা জয় লাভ করেছি।’