কমিউনিটি নেতা ও সেলিব্রেটি শেফ অলি খান এম,বি,এ খেতাবে ভূষিত হওয়ায় “ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপের” পরিচালনা পরিষদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন

প্রকাশিত: ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৩১, ২০২১

কমিউনিটি নেতা ও সেলিব্রেটি শেফ অলি খান এম,বি,এ খেতাবে ভূষিত হওয়ায় “ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপের” পরিচালনা পরিষদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন

মোঃ আমির আলী,বালাগঞ্জ থেকেঃ
মোলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলার কৃতি সন্তান ,বৃটেনের কমিউনিটি নেতা ও সেলিব্রেটি শেফ অলি খান এমবিই খেতাবে ভূষিত হওয়ায় সিলেট মিডিয়া কর্পোরেশনের প্রধান উপদেষ্টা অলি খান এম,বি,এ কে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন “ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপের” পরিচালনা পরিষদ।

চলতি বছর ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের জন্মদিনে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ব্রিটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটিতে বিভিন্ন সেবামূলক কাজে অবদানের জন্য সম্মাননা তালিকায় যুক্ত হয়েছেন। বৃটেনের প্রাচীণতম সংগঠন বাংলাদেশ ক্যাটারার্স এসোসিয়েশন বিসিএ’র সাবেক সফল সাধারন সম্পাদক ও মৌলভীবাজার ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিল ইন ইউকের সভাপতি
যুক্তরাজ্যের অত্যন্ত সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব, গিনেজ বুকে রেকর্ডধারী সেলিব্রেটি শেফ অলি খান হসপিটালিটি সেক্টরে বিশেষ অবদানের জন্য রাণীর সম্মান সূচক মেম্বার অফ ব্রিটিশ এম্পেয়ার এমবিই খেতাব লাভ করায় ব্রিটেনে বাঙালীদের জন্য তথা রাজনগরবাসীর জন্য এক বিরাল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তিনি বৃটেনের ইলেকট্রন মিডিয়ার জগতে এক পরিচিত মুখ।বৃটেনের লুটন শহরে বসবাসকারী মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলার পাটানতুলা গ্রামের কৃতিসন্তান মরহুম আলহাজ্ব আইয়ুব আলী খান এর দুই ছেলে ও তিন মেয়ের মধ্যকার ১ম পুত্র, মোহাম্মদ ওলি খান ১৬ বছর বয়সে ১৯৮৯ সালে বৃটেনে আসেন। এখানে এসে ক্যাটারিং ব্যাবসা শুরু করা সহ কমিউনিটি ও সমাজসেবামূলক কাজে নিষ্টা ও নিরলসভাবে কাজ করে চলছেন। জনাব অলি বাঙ্গালী কমিউনিটির গর্ব বলে বেশ কয়েকজন কমিউনিটি নেতা এ অভিমত ব্যক্ত করেন ।

সিলেট মিডিয়া কর্পোরেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী হোসাইন বলেন, সততা, পরিশ্রম আর একনিষ্ঠতা মানুষকে নিয়ে যায় উপরে, অনেক উপরে।
সেলিব্রিটি শেফ অলি খান এম,বি,এ যার জ্বলন্ত প্রমাণ।
সিলেট বিভাগের কৃতি সন্তান। কারি শিল্পের প্রবাদ পুরুষ। আমি উনার নাম শুনেছি গত এক দশক থেকে। তার সুনাম ও যশ গ্রেট বৃটেনের বাইরেও ব্যাপক। গোটা ইংল্যান্ডের সচেতন মহলের মুখে মুখে তার খ্যাতির কথা শুনেছি।
ঘন্টা খানেকের ভিতর তার জীবন যুদ্ধের বিজয়ের অনেক কাহিনী শুনে আমি অভিভূত। মেহমানদারীতেও সিদ্ধহস্ত। তাও বললেন– আমাদের মহানবী সা. মেহমানদেরে বেশী মহব্বত করতেন।
বিদায় লগ্নে তার দামী ব্রান্ডের গাড়ী দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছে দিলেন উদারচেতা নিরহংকারী নন্দিত সমাজসেবী জনাব ওলি ভাই।
গাড়ী থেকে নামার পর মূল্যবান একটি হাদিয়াও দিলেন।
শুভ কামনা রইলো আমাদের গর্ব ওলি ভাই সহ যারা সাত সমুদ্র তেরো নদীর ওপারে মেহনত করে দেশ- জাতী ও ইসলামের তরে জীবনকে বিলিয়ে দিচ্ছেন তারে তাদের জন্য।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

faster