fbpx

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বিরোধী মিছিলে মন্দির ভাংচুরের দায়ে বহিস্কৃত ইবি ছাত্রলীগ নেতা

প্রকাশিত: ১:৪২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০২১

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বিরোধী মিছিলে মন্দির ভাংচুরের দায়ে বহিস্কৃত ইবি ছাত্রলীগ নেতা

নিউজ ডেস্কঃ
সম্প্রতি শারদীয় দূর্গোৎসবকে কেন্দ্রে করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সনাতন ধর্মালম্বীদের উপর সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছে।

Advertisements

এরই প্রতিবাদে সারা দেশের ন্যায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়েও সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বিরোধী বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তবে উক্ত বিক্ষোভ মিছিলে ২০১৬ সালের ১৩ মার্চ মন্দির ভাংচুরের দায়ে অভিযুক্ত এক ছাত্রলীগ নেতাকে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। অভিযুক্ত ওই নেতার নাম ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত। সে ছাত্রলীগের তৎকালীন সহ-সম্পাদক ছিল বলে জানা গেছে।

সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় উস্কানীদাতার সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বিরোধী মিছিলে অংশগ্রহণ করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন মহলে সমালোচনার ঝড় উঠে।

জানা যায়, ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত ২০১৬ সালের ২৩ মার্চ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসির নিচ তলায় অবস্থিত সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপসনালয়ে হামলা ও ভাংচুর চালায়।

পরে ৩০ মার্চ রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক কর্তৃক সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যক্রমে অংশ নেওয়ায় তাকে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাবেক ও বর্তমান ছাত্রলীগের বেশ কিছু নেতাকর্মী বলেন, “সাম্প্রদায়িক সহিংসতাড় উস্কানী দিয়ে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বিরোধী মিছিলে অংশগ্রহণ করা নিছক একটা নাটক। এরাই একসময় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নষ্টের মূল কারণ হয়ে দাঁড়াবে। এসব নাটকবাজদের ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের দাবি জানায়।

Advertisements

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ